ইসরাইলগামী সব ফ্লাইট বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ

Posted: July 23, 2014 in খবর
Tags: , ,

86276_1হামাসের রকেট তেল আবিব বিমানবন্দরের কাছাকাছি আঘাত হানার পর ইসরাইলগামী সব ফ্লাইট বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপ।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের এ সিদ্ধান্ত দেশটির জন্য একটি বড় আঘাত।

এরফলে পর্যটন নির্ভর ইসরাইলের অর্থনীতিতে বড় ধরণের ধাক্কা লাগতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অন্যদিকে এমন খবরও প্রকাশিত হচ্ছে যে, ইসরাইলের একগুঁয়েমিতে নাখোশ হয়েই যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে এ ধরণের খবরের সত্যতা নাকচ করে দেয়া হয়েছে।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু বাণিজ্যিক ফ্লাইট পুনরায় চালুর জন্য মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরিকে অনুরোধ করেছেন।

মঙ্গলবার নিরাপত্তার আশঙ্কায় ডেল্টা এয়ারলাইন্স, ইউনাইটেড এয়ার ও ইউএস এয়ারওয়েজের সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ)  স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সোয়া ১২টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত তেল আবিবের বেন গুরিয়ন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো বিমানের অবতরণের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

এর আগে ওই বিমানবন্দরের এক মাইলের মধ্যে হামাসের একটি রকেট আঘাত হানে।

এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এফএএ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ এ মূল্যায়ন করতে থাকবে। পরিস্থিতির অনুকূলে এলেই হালনাগাদ নির্দেশাবলী যুক্তরাষ্ট্রের বিমান সংস্থাগুলোকে জানানো হবে। তবে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই।’

তেল আবিবে রকেট হামলার খবরের পর ডেল্টার ফ্লাইট ৪৬৮, যেটি বোয়িং ৭৪৭ বিমান এবং ২৭৩ জন যাত্রী ও ১৭ জন ক্রু নিয়ে তেল আবিব যাচ্ছিল, তার গতিপথ পরিবর্তন করে প্যারিসে নিয়ে যাওয়া হয়। এটি সাধারণত নিউ ইয়র্কের জেএফকে বিমানবন্দর এবং বেন গুরিয়নের মধ্যে চলাচল করে।

অনির্দিষ্টকালের জন্য এই পথে বিমান চলাচল বাতিল করে দিয়েছে ডেল্টা।

অন্যদিকে নেয়ার্ক থেকে তেল আবিবগামী ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট নম্বর ৮৪ ও ৯০ বাতিল করা হয়েছে।

ইউনাইটেডের মুখপাত্র জেনিফার ডম বলেছেন, ‘পরবর্তী নোটিশ না দেয়া পর্যন্ত আমরা তেল আবিবগামী ফ্লাইট বাতিল করেছি। আমরা আমাদের যাত্রী ও কর্মকর্তাদের  নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের কর্মকর্তাদের সাথে কাজ করছি এবং পরিস্থিতির মূল্যায়ন অব্যাহত রেখেছি।’

ইউএস এয়ারওয়েজও লস এঞ্জেলেস থেকে তেল আবিবগামী ফ্লাইট নম্বর ৭৯৬ বাতিল করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, তারা জরুরি প্রয়োজন ছাড়া তাদের নাগরিকদের ইসরাইল সফরের ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে।

গত ৮ আগস্ট গাজায় ইসরাইলি হামলা শুরুর পর থেকেই ইসরাইলে দূর পাল্লার রকেট ছুড়ছে হামাস। ইসরাইলে আয়রন ডোম ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিছু রকেট হামলা ঠেকাতে পারলেও অনেক রকেট আঘাত হানছে এবং তাদের ক্ষয়ক্ষতিও হচ্ছে।

ইউরোপের প্রতিক্রিয়া

দা ইউরোপিয়ান এভিয়েশন সেফটি এজেন্সি বলেছে, তারা  তেল আবিবগামী সব ফ্লাইট বাতিল করার জন্য সব এয়ারলাইন্সকে ‘জোর সুপারিশ’ করেছে।

তবে এই ঘোষণার আগেই সুইস, জার্মান ও অস্ট্রিয়ান এয়ালাইন্সের সমন্বয়ে গঠিত লুফথানসা জানিয়েছে যে তারা দুদিন ধরে ইসরাইলে ফ্লাইট বাতিল করেছে।

কেএলএম ও এয়ার ফ্রান্স বলেছে, তারা ইউরোপিয়ান এভিয়েশন সেফটি এজেন্সির পরামর্শে ফ্লাইট বাতিল করেছে।

এছাড়া ইজিজেট, এয়ার কানাডা এবং আলিতালিয়াও ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করেছে।

সূত্র: আরটিএনএন

Advertisements

আপনার মন্তব্য লিখুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s