Posts Tagged ‘ইসরাইলী নৃশংসতা’

abumorrশিরোনামের প্রশ্নটি করেছেন গাজা ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী, ফিলিস্তিনি ব্লগার ও মানবাধিকারকর্মী মাইসাম আবুমরআলজাজিরার মতামত বিভাগে প্রকাশিত মাইসামের পাঠানো এই চিঠিতে তিনি আশংকা প্রকাশ করেন, এই চিঠি তারও শেষ চিঠি হতে পারে। এটি অনুবাদ করেছেন গাউস রহমান পিয়াস

মনে পড়ছে গাজায় আন্তর্জাতিক আইন ও মানবাধিকারবিষয়ক আইসিআরসির এক কর্মশালায় একজন ফিলিস্তিনি প্রশ্ন করেছিলেন : ‘কী কী যোগ্যতা থাকলে এই মানবাধিকারগুলো আমিও পাব?’ ‘কিচ্ছু না। আপনাকে মানুষ হতে হবে, এইটুকুনই।’ তেমন না ভেবেই উত্তর দিয়েছিলেন প্রশিক্ষক

আজ আমিও প্রশ্ন করছি, মানুষ হিসেবে গণ্য হতে হলে আমাকে কী করতে হবে? কী হতে হবে? আমার জীবনও তো স্বাভাবিক মানুষের মতোই! আমি ভালোবাসি। ঘৃণা করি। কাঁদি। হাসি। আমি ভুল করি। শিখি। আমি স্বপ্ন দেখি। আঘাত দিই। আঘাত পাই। পিৎজা আমার খুব পছন্দ। টাইটানিক ছবিটি দেখেছি ছয়বার। ব্যাডলি কুপারের জন্য পাগল। আমার অসুখ হয়। কখনো এমন সস্তা কৌতুক করি যে নিজেরই হাসি পায় এবং সর্বশেষ যেদিন নিজেকে আয়নায় দেখেছিলাম আমাকে মানুষের মতোই দেখাচ্ছিল। (more…)

3-isareli-juvenileতিন ইসরাইলি কিশোর অপহরণ ও হত্যার ঘটনায় হামাস জড়িত নয়। শুক্রবার ইসরাইলি পুলিশের মুখপাত্র মিকি রোজেনফিল্ড একথা স্বীকার করেছেন।

অথচ তিন কিশোরকে হামাস অপহরণের পর হত্যা করেছে বলে দাবি করে গত ১৯ দিন ধরে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ভয়াবহ আগ্রাসন চালাচ্ছে ইসরাইল। মানবতাবিরোধী এ আগ্রাসনে হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি মুসলমান নিহত হয়েছে। যাদের বেশির ভাগই শিশু ও নারী।

মিকি রোজেনফিল্ড বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘তিন ইসরাইলি কিশোরকে অপহরণের নির্দেশ হামাস দেয়নি। যারা এ তিন কিশোরকে হত্যা করেছে তাদের সাথে হামাসের কোনো সম্পর্ক নেই। তারা নিজেরাই এককভাবে এ কাজ করেছে।’ (more…)

ইসরাইল কোন কোন সময় দয়া করে হামালার আগে কোন কোন ঘরে ফোন করে কিংবা ছাদে ছোট বিস্ফোরণ ঘটায়। এটা হল সতর্কীকরণ বার্তা যার অর্থ হল এরপরের টার্গেট তোমার ঘর, সুতরাং এখনই পালাও। এ নিয়ে একজন ফিলিস্তিনী বংশোদ্ভুত আমেরিকান কবি লেনা খালাফ তুফফাহা কবি ‘Running Orders’ শিরোনামে একটি কবিতা  লিখেছেন। কবিতাটির অংশবিশেষ ভাবানুবাদ করেছেন জাহিদ রাজন

পালানোর আদেশ

তারা আমাদেরকে এটা বলার জন্য ফোন করে যে
পালাও।

এ সংবাদটি পৌঁছে যাবার পর তোমার হাতে আটান্ন সেকেন্ড সময় আছে
এরপর তোমার ঘর ধ্বংস করা হবে।
তারা মনে করে এটা এক ধরনের যুদ্ধকালীন সৌজন্যতা । (more…)

লিখেছেন জাহিদ  রাজন

একজন পশ্চিমা সাংবাদিক গাজায় র‍্যান্ডমলি বেশ কিছু মানুষকে প্রশ্ন করেছেন । প্রশ্নটি ছিল তারা কি মনে করে এ অবস্থার জন্য হামাস দায়ী ? উত্তরে প্রায় সবাই মনে করে এর জন্য হামাস দায়ী নয়, বরং ইসরাইল দায়ী।

হামাস আগে রকেট ছুঁড়ে, হামাসের রকেটের বিনিময়ে ইসরাইল কয়েক শ টন বোমা ছুঁড়ে। এগুলো ইসরাইলের জন্য অনেক বেশি ভদ্র লজিক। হামাস না থাকলে কি হত ? হামাস প্রতিষ্ঠার আগে অবস্থা কি ছিল ? তখন কি ইসরাইলি আগ্রাসন ছিল না ? আরাফাত যিনি এত কম্প্রোমাইজ করলেন, অসলো চুক্তি করলেন (যেটা ছিল একটা ব্লান্ডার) তিনি কি শেষ রক্ষা করতে পেরেছিলেন ? তিনি নিজেই তো মারা গেলেন ইসরাইলের দেয়া পোলোনিয়াম বিষে। ওয়েস্ট ব্যাংক এর এখন কি অবস্থা ? সেখানে তো হামাস নাই। সেটা কি মুক্ত ? আসলে হামাস না থাকলেও অন্য একটা ছুতো বের করত ইসরাইল।

হামাস যখন সারা বছর চুপ ছিল তখন কি ইসরাইল নিরীহ জেলে, নারী- শিশু হত্যা করে নাই ? ইসরাইল কি ২০১২ এর যুদ্ধবিরতি চুক্তি ভঙ্গ করে নাই ? তাই হামাস রকেট ছুঁড়ে এই ধরণের যুক্তি ইসরাইলের জন্য না। কারণ ইসরাইল দখলদার। বছরের পর বছর আমার দেশ কেউ দখল করে নিলে, যে কোন সময়ে বিনা বিচারে গুলি বা হত্যা করলে (যেমনটা ইসরাইল করে), ব্রিটিশ এমপিও রকেট ছুঁড়তেন বলে মন্তব্য করেছেন। অতএব, হামাস না থাকলে এই সমস্যা সমাধান হত এরকম মনে করার কোন কারণ নাই। এটা একেবারে ফ্লড লজিক।

(more…)

naviজাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার নাভি পিল্লাই বলেছেন, ‘ফিলিস্তিনে ইসাইলি হামলা বর্বর। ইসরাইল আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করছে। এটা যুদ্ধাপরাধ।’ – অলজাজিরা, এএফপি।

বুধবার জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের জরুরি বিতর্ক অনুষ্ঠানের উদ্বোধনকালে তিনি এথা বলেন। হামাসের রকেট ও মর্টার হামলারও নিন্দা করেন নাভি পিল্লাই।

নাভি পিল্লাই বলেন, ‘গাজায় হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ধ্বংস করে দিচ্ছে ইসরাইল। হত্যা করছে শিশু ও নারীদের। এটা আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।এটা যুদ্ধাপরাধ।’

ইসরাইলের হামলায় গাজায় এ পর্যন্ত ৬৩০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের অধিকাংশই বেসামরিক নাগরিক। এদিকে হামাসের রকেট হামলার কারণে তেল আভিভ থেকে বিমান চলাচল বন্ধের পথে। যুদ্ধ বন্ধের জন্য কূটনৈতিক তৎপরতা চলছে।–যোগ করেছেন তিনি।

ইসরাইলের সমালোচনা করে পিল্লাই বলেন, ‘গাজায় হাসপাতালসহ বেসামরিকদের ওপর হামলা বন্ধ করতে হবে।

সূত্র: অনলাইন বাংলা

86286_2গাজায় ইসরাইলের বর্বর হামলায় ক্ষুব্ধ বৃটেনের একজন সংসদ সদস্য বলেছেন, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে বাস করলেও তিনিও ইসরাইলে রকেট ছুড়তেন।

এক টুইটার বার্তার লিবারেল ডেমোক্রেটিক দলের এমপি ডেভিড ওয়ার্ড বলেন, ‘বড় প্রশ্ন হলো- গাজায় বাস করলে আমিও রকেট ছুড়তাম কিনা?- সম্ভবত হ্যাঁ।’

গাজা নিয়ন্ত্রণকারী ইসলাপপন্থী হামাস যোদ্ধাদের রকেট হামলায় ইসরাইল বেশ চাপের মধ্যে রয়েছে। এখন ইসরাইলে দূর পাল্লার রকেট ছুড়ছে হামাস।

মঙ্গলবার হামাসের রকেট তেল আবিব বিমাবন্দরের কাছে আঘাত হানার পর ইসরাইলে সব ফ্লাইট বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। (more…)

মানবতার ডাকেই নরওয়ের ডাক্তার ম্যাড গিলবার্ট ছুটে গিয়েছেন গাজার আস- শিফা হাসপাতালে । দিন রাত কাজ করে যাচ্ছেন এই মানবতাবাদি চিকিৎসক । গত রাতে গাজায় জায়নবাদী ইসরাইলের বর্বর হত্যাযজ্ঞের পর তিনি এক খোলা চিঠিতে সেই হত্যাকাণ্ডের বর্ননা করেছেন। মিডল ইষ্ট মিনিটর থেকে সেটি অনুবাদ করেছেন নাজমী নাতিয়া

85133_1প্রিয়তম বন্ধুগণ,
গত রাতের তীব্রতা সমস্ত মাত্রা ছাড়িয়ে গিয়েছিলো। গাজায় স্থল আক্রমণের পরিণতি শুধু যত্র তত্র কাটা ছেঁড়া শরীর, গাড়িভর্তি আহত, দ্বিখণ্ডিত, রক্তে ভেজা, মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে যাওয়া ফিলিস্তিনি মানুষগুলো। যারা সাধারণ, যারা নিষ্পাপ। যাদের বয়স কোন বাঁধা সৃষ্টি করতে পারেনি।

গাজার এম্বুলেন্সগুলোতে, সব কয়টি হাসপাতালে বীরসন্তানেরা ১২ থেকে ২৪ ঘণ্টার শিফটে একনাগাড়ে কাজ করে যাচ্ছে। অমানবিক পরিশ্রম আর নিঃশেষ হয়ে আসা মানুষিক শক্তির দরুন তারা বিবর্ণ হয়ে উঠছে। তারা প্রত্যেকে গত চার মাস ধরে বিনা পারিশ্রমিকে সেবা দিয়ে আসছে শিফা হাসপাতালে। তারা যত্ন নিচ্ছে, তটস্থ থাকছে এই ভেবে কার আগে কাকে চিকিৎসা দেয়া প্রয়োজন। তারা বিশৃঙ্খলভাবে পরে থাকা দেহের, আঁকারের, অঙ্গ প্রত্যঙ্গের বোধাতীত বিষয়গুলো বোঝার চেষ্টা করে যাচ্ছে। তারা আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে নিস্তেজ, অক্ষম, রক্তাক্ত অথবা অসাড় মানুষগুলোকে জানতে। মানুষগুলোকে!

এ মুহূর্তে, আরো একবার “বিশ্বের সবচেয়ে নীতিবান সৈন্যবাহিনী” দ্বারা পশুর মত নিপীড়িত হচ্ছে মানুষগুলো ( এটাই হচ্ছে!)
আহতদের প্রতি আমার অপার সম্মান। কস্ট, অভিঘাত আর যন্ত্রণার মাঝেও তাদের এই অসাধারণ দৃঢ়চিত্তের প্রতি আমার সম্মান। কর্মচারী এবং স্বেচ্ছাসেবকদের জন্য আমার তারিফ অবিরাম। ফিলিস্তিনি “সুমদের” (ধৈর্য) প্রতি আমার ঘনিষ্ঠতা আমাকে শক্তি দেয় যদিও মাঝে মাঝে এর এক একটি ঝলকে আমার চিৎকার করে উঠতে ইচ্ছে করে। কাউকে শক্ত করে ধরে কাঁদতে ইচ্ছে করে। রক্তে জড়ানো ওই উষ্ণ কোমল শিশুর ত্বক ও চুলের গন্ধ নিতে ইচ্ছে করে। ইচ্ছে করে, অনন্তকালের জন্য শক্ত আলিঙ্গনের মাধ্যমে নিজেদের রক্ষা করতে কিন্তু আমাদের যেমন সে সামর্থ্য নেই, তাদেরও নেই। (more…)

gazaফিলিস্তিনের গাজায় ইহুদীবাদী ইসরাইলের হামলায় বেড়েই চলেছে নিহতের সংখ্যা। স্থল অভিযানের তৃতীয় আর আগ্রাসনের ১৩তম দিনে রবিবার নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪০ জনে দাঁড়িয়েছে।

এর মধ্যে শনিবার গাজায় ‘অবিশ্রান্তভাবে ও নির্বিচারে’ ট্যাংকের গোলা নিক্ষেপ করছে ইসরাইল। শনিবারের হামলায় মারা গেছে অন্তত ৩৪ জন।

গাজায় ১৩ দিনের ইসরাইলি আগ্রাসনে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ৩৪০ জন ফিলিস্তিনি। এদের মধ্যে ৭৭টি শিশু ছাড়াও রয়েছেন ২৪ নারী ও ১৮জন প্রবীণ ব্যক্তি। হামলায় আহত হয়েছেন ২ হাজার ৩৮৫ জন।

ইহুদিবাদী আগ্রাসনের প্রতিবাদে গাজা নিয়ন্ত্রণকারী হামাস ইসরাইলে ১ হাজার রকেট ছুড়েছে। হামলায় এখন পর্যন্ত দুই ইসরাইলি নিহত হয়েছে।

অব্যাহত প্রাণহানি ঘটনায় জাতিসংঘ মহাসচিব বান-কি মুন ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে মধ্যস্থতার ওপর জোর দিয়েছেন। তিনি দুর্গতদের ত্রাণ সাহায্য এবং সংঘাতের অবসান ঘটাতে দ্রুত একটি পথ বের করার আহ্বান জানিয়েছেন।

টানা ১০ দিন ধরে বিমান হামলা চালানোর পর বৃহস্পতিবার রাতে স্থল অভিযান শুরু করে ইসরাইলি সেনারা।

নিহতদের পুরো তালিকা জানতে ক্লিক  করুন আল-জাজিরার এই লিংকে

86041_1ইসরাইলি বর্বরতা নিয়ে টুইট করায় ফিলিস্তিনের গাজা থেকে এবার সিএনএনের এক সাংবাদিককে বদলি করা হয়েছে।

ডায়না ম্যাগনে নামের সিএনএনের ওই সাংবাদিক অবরুদ্ধ গাজা থেকে প্রতিবেদন পাঠাচ্ছিলেন।

বৃহস্পতিবার ইসরাইলি বর্বর সামরিক বাহিনী যখন গাজায় নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করে তখন তিনি সরাসরি ওই ঘটনার প্রতিবেদন পাঠান।

এতে দেখা যায়, ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর ইসরাইলি সেনারা উল্লাসে ফেটে পড়ে।

প্রতিবেদনের পর এক টুইটার বার্তায় ডায়না বলেন, লাইভ প্রতিবেদন চলাকালেই ইসরাইলি সেনারা তাকে হুমকি দিয়েছে।

টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘ সেদেরত পাহাড়ের ওপর অবস্থানরত ইসরাইলি সেনারা গাজায় বোমা বিস্ফোরণের পরই উল্লাসে ফেটে পড়ে এবং হুমকি দেয় যে কোনো ভুল কথা বললে আমাদের গাড়ি ধ্বংস করে দেবে। শিঠ।’ (more…)